ঢাকা, শুক্রুবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : এপ্রিলে ঢাকায় আইপিইউ ১৩৬ তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে   |   শিক্ষা : মুক্তির উৎসবে শিক্ষার্থীদের শপথ   |    বিভাগীয় সংবাদ : গাংনীতে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আহত ৮ * জয়পুরহাট শিবরাত্রি উৎসব শুরু : ভক্তদের পদভারে মুখরিত * কুয়েটে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে ওয়েস্টসেফ-১৭ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন   |    জাতীয় সংবাদ : ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ পরিচালিত ক্যাপস্টোন কোর্সের এলামনাই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত* অপরাধ করলে তাকে শাস্তি পেতেই হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী* ডব্লিওএলএফর সোস্যাল ইনোভেটর ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত হলেন হুইপ ইকবালুর রহিম* নয়াদিল্লির উদ্দেশে জয়শংকরের ঢাকা ত্যাগ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : লিবিয়ায় জাহাজের কন্টেইনার থেকে ১৩ অভিবাসন প্রত্যাশীর লাশ উদ্ধার * ফিলিপাইনে প্রেসিডেন্টের সমালোচক নারী সিনেটর গ্রেফতার * কয়লা আমদানি নিষিদ্ধ প্রশ্নে মিত্র দেশ চীনের সমালোচনা উ. কোরিয়ার   |   খেলাধুলার সংবাদ : সিরিজে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে নামছে নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা * জয়ের ধারায় ফিরতে চায় শীর্ষে থাকা চেলসি *   |   

কঙ্গোতে মিলিশিয়া প্রধানকে হত্যার জেরে সংঘর্ষে ২৬ হত

কিনশাসা, ১২ জানুয়ারি ২০১৭ (বাসস) : গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গোতে এক উপজাতীয় প্রধানকে হত্যার জেরে তার সমর্থক ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে নতুন বছরের শুরু থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে ২ ডজনের বেশি লোক নিহত হয়েছে।
স্থানীয় এক গভর্নর এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় কাসাই প্রদেশের গভর্নর আলেক্স কান্দে এক বিবৃতিতে বলেন, ২০১৭ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৪ বেসামরিক নাগরিক, নিরাপত্তা বাহিনীর ৯ সদস্য ও ১২ মিলিশিয়া যোদ্ধাসহ ২৬ জন নিহত হয়েছে।
কান্দে বলেন, নিহতদের মধ্যে এক মিলিশিয়া নেতার স্ত্রীও রয়েছেন।
জাতিসংঘের হিসেব মতে, গত মধ্য আগস্টে উপজাতীয় নেতা কামউইনা সাঁপুর মৃত্যুর পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ১৪০ জন লোক বিভিন্ন সংঘর্ষে নিহত হয়েছে।
গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে জাতিসংঘ বলেছে, কঙ্গোর পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে।
গভর্নর কান্দে এক বিবৃতিতে বলেন, কামউইনা সাঁপুর আন্দোলন সম্পূর্ণ অরাজতকা থেকে ভয়াবহ গেরিলা বাহিনীতে রূপ নিয়েছে।
গভর্নর অভিযোগ করেন, কামউইনা সাঁপুর সমর্থকরা তাদের সরকার বিরোধী লড়াইয়ে জোর করে অপ্রাপ্ত বয়স্কদের সম্পৃক্ত করছে এবং নারী ও শিশুদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।
কামউইনা সাঁপু অনলাইনে এক অডিও বার্তায় প্রথমবারের মতো কঙ্গো মুক্ত করার আহবান জানানোর পর পরই গত বছর ১২ আগস্ট এক পুলিশী অভিযানে নিহত হন।
প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলা পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানানোর পর থেকে ডিআর কঙ্গোর বেশ কয়েক মাস ধরে রাজনৈতিক সংকটে পড়েছে।
তবে দেশটির বিশাল জনগোষ্ঠী কাবিলার শাসনের সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন অসন্তোষের কারণে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। দেশটি কয়েকটি অংশে জাতিগত ও ধর্মীয় সংঘাত চলছে।

সম্পর্কিত সংবাদ