ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৩, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ২৬ মার্চ যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বন্ধ * খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলা নিম্ন আদালতে চলবে * বিশ্ব আবহাওয়া দিবস পালিত   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : লন্ডন হামলার পর বার্মিংহামে পুলিশের অভিযান * ট্রাম্পের পর এবার ন্যাটোর অর্থায়ন নিয়ে কথা বললেন পেন্টাগন প্রধান * লন্ডনে হামলার পর রাতভর পুলিশের অভিযান, ৭ জন গ্রেফতার   |    বিভাগীয় সংবাদ : পিরোজপুরে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত * খুলনায় একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের সদস্যরা এখন স্বাবলম্বী   |   প্রধানমন্ত্রী : স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৭ প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী * কাঙ্ক্ষিত উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ কারো ওপর নির্ভরশীল নয় : প্রধানমন্ত্রী   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : বালিতে শক্তিশালী ভূমিকম্প, আহত ৪ * জাতিসংঘ সমর্থিত সিরীয় শান্তি আলোচনা জেনেভায় শুরু হচ্ছে * লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টারে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত ৫ * ব্রিটেনের প্রতি বিশ্ব নেতাদের সংহতি প্রকাশ   |    বিভাগীয় সংবাদ : মাগুরায় ট্রাক-পিকআপ মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক-হেলপার নিহত * ভোলা খালের দুপাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু * মেহেরপুরের হাট বাজার তরমুজে ভরে গেছে * রাজশাহীর ১০৫ মাদক বিক্রেতার স্বাভাবিক জীবনে প্রত্যাবর্তন   |   খেলাধুলার সংবাদ : বিবিসিআইয়ের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে শীর্ষ ধাপে পুজারা, জাদেজা ও বিজয় * জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি ওয়ানডে ম্যাচ আয়োজন করবে স্কটল্যান্ড * বিদায়ী ম্যাচে পোদোলস্কির গোলে ইংল্যান্ডকে হারালো জার্মানী   |   

কঙ্গোতে মিলিশিয়া প্রধানকে হত্যার জেরে সংঘর্ষে ২৬ হত

কিনশাসা, ১২ জানুয়ারি ২০১৭ (বাসস) : গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গোতে এক উপজাতীয় প্রধানকে হত্যার জেরে তার সমর্থক ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে নতুন বছরের শুরু থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে ২ ডজনের বেশি লোক নিহত হয়েছে।
স্থানীয় এক গভর্নর এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন।
কেন্দ্রীয় কাসাই প্রদেশের গভর্নর আলেক্স কান্দে এক বিবৃতিতে বলেন, ২০১৭ সালের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৪ বেসামরিক নাগরিক, নিরাপত্তা বাহিনীর ৯ সদস্য ও ১২ মিলিশিয়া যোদ্ধাসহ ২৬ জন নিহত হয়েছে।
কান্দে বলেন, নিহতদের মধ্যে এক মিলিশিয়া নেতার স্ত্রীও রয়েছেন।
জাতিসংঘের হিসেব মতে, গত মধ্য আগস্টে উপজাতীয় নেতা কামউইনা সাঁপুর মৃত্যুর পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ১৪০ জন লোক বিভিন্ন সংঘর্ষে নিহত হয়েছে।
গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে জাতিসংঘ বলেছে, কঙ্গোর পরিস্থিতি দিন দিন অবনতি হচ্ছে।
গভর্নর কান্দে এক বিবৃতিতে বলেন, কামউইনা সাঁপুর আন্দোলন সম্পূর্ণ অরাজতকা থেকে ভয়াবহ গেরিলা বাহিনীতে রূপ নিয়েছে।
গভর্নর অভিযোগ করেন, কামউইনা সাঁপুর সমর্থকরা তাদের সরকার বিরোধী লড়াইয়ে জোর করে অপ্রাপ্ত বয়স্কদের সম্পৃক্ত করছে এবং নারী ও শিশুদের মানবঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে।
কামউইনা সাঁপু অনলাইনে এক অডিও বার্তায় প্রথমবারের মতো কঙ্গো মুক্ত করার আহবান জানানোর পর পরই গত বছর ১২ আগস্ট এক পুলিশী অভিযানে নিহত হন।
প্রেসিডেন্ট জোসেফ কাবিলা পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানানোর পর থেকে ডিআর কঙ্গোর বেশ কয়েক মাস ধরে রাজনৈতিক সংকটে পড়েছে।
তবে দেশটির বিশাল জনগোষ্ঠী কাবিলার শাসনের সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন অসন্তোষের কারণে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। দেশটি কয়েকটি অংশে জাতিগত ও ধর্মীয় সংঘাত চলছে।

সম্পর্কিত সংবাদ