ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জুন ২৯, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : ভিশন ২০২১ অর্জনের ক্ষেত্রে এই বাজেট মাইলফলক: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী *নিয়ম মেনেই যৌথ প্রযোজনায় নবাব ওবস- মুক্তি দেয়া হয়েছে: প্রেসনোট *   |   জাতীয় সংসদ : জঙ্গি দমনে জিরো টলারেন্স নীতি আজ রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী * বাজেট বাস্তবায়নে সক্ষমতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ এরশাদের * বাংলাদেশ মাথাপিছু জাতীয় আয় এবং অর্থনৈতিক ভঙ্গুরতা সূচকে প্রারম্ভ রেখা অতিক্রম করেছে : প্রধানমন্ত্রী   |   শিক্ষা : কারিগরি শিক্ষাই হবে দেশের ভবিষ্যৎ নির্মাণের মূল শক্তি : শিক্ষামন্ত্রী   |    বিভাগীয় সংবাদ : গোপালগঞ্জে পিক-আপ উল্টে নিহত-১, আহত-৮ *নবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় মা ও ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ভেনিজুয়েলায় সুপ্রিম কোর্টে হেলিকপ্টার হামলা *জাতিসংঘের রিফিউজি ক্যাশ কার্ড : বদলে দিচ্ছে লেবাননের মুদি দোকানীদের ভাগ্য * অস্ট্রেলিয়ায় বিমান বিধ্বস্ত : নিহত ৩ * ভেনিজুয়েলার সুপ্রিম কোর্টে হেলিকপ্টার দিয়ে হামলা, সতর্কাবস্থায় সেনাবাহিনী    |    জাতীয় সংবাদ : ঈদের সময় হাসপাতালেগুলোতে চিকিৎসা সেবার কোনো বিঘ্ন ঘটেনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী *শেখ হাসিনার সরকার সহায়ক সরকারের ভূমিকা পালন করবে : ওবায়দুল কাদের *বিশিষ্ট সঙ্গীতজ্ঞ সুধীন দাস আর নেই ॥ রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক    |   খেলাধুলার সংবাদ : ক্রীড়ামন্ত্রীকে বাদর বলে কটাক্ষ করায় এক বছর নিষিদ্ধ হলেন মালিঙ্গা   |   

ইয়েমেন যুদ্ধ কেড়ে নিয়েছে ১৪শ শিশুর প্রাণ

সানা, ১২ জানুয়ারি ২০১৭ (বাসস) : ইয়েমেন যুদ্ধ ১৪শ শিশুর প্রাণ কেড়ে নিয়েছে, আহত হয়েছে আরো কয়েকশ শিশু এবং অনেক স্কুল যুদ্ধের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে।
জাতিসংঘ শিশু তহবিল বুধবার এ কথা জানায়।
ইয়েমেনে ইউনিসেফের প্রতিনিধি মেরিটসেল রেলানো বলেন, বেসামরিক এলাকাগুলোতে হামলার কারণে এখনো বহুসংখ্যক শিশুর প্রাণহানি এবং আহত হওয়া অব্যাহত রয়েছে।
তিনি বলেন, প্রায় ১৪শ শিশুর প্রাণহানির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেলেও প্রকৃত হতাহতের সংখ্যা আরো অনেক বেশি হতে পারে।
২০১৫ সালের মার্চে ইয়েমেন সরকারের সমর্থনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীদের ওপর বিমান হামলা শুরুর পর থেকে ইয়েমেনে এ পর্যন্ত ৭ হাজার ৩শরও বেশি নিহত হয়েছে।
রেনালো বিবদমান পক্ষগুলোর প্রতি শিশুদের রক্ষা করার এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হামলা বন্ধ করার আহবান জানায়।
রেনালো বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সবসময় হওয়া উচিত শান্তির এলাকা। স্কুল হবে এমন এক অভয়াশ্রম যেখানে শিশুরা শিখবে, বড় হবে, খেলবে এবং নিরাপদ থাকবে।
তিনি বলেন, কেবল স্কুলে যাওয়ার জন্য শিশুদের কখনোই জীবনের ঝুঁকি নেয়া উচিত নয়।
তিনি জানান, ধ্বংস, ক্ষতিগ্রস্ত ও আশ্রয় কেন্দ্র বা সামরিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের কারণে ইয়েমেনে প্রায় ২ হাজার স্কুল ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

সম্পর্কিত সংবাদ