ঢাকা, বুধবার, জানুয়ারী ২৪, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংসদ : বিদ্যুৎ চুরিসহ এ সংক্রান্ত অপরাধে দন্ডের বিধান রেখে সংসদে বিদ্যুৎ বিল পাস   |    জাতীয় সংবাদ : ফোরজি/এলটিই লাইসেন্সের আবেদনের জন্য সকল এমএনওকে যোগ্য ঘোষণা * সরকার সকলকে এনআইডি প্রদান করবে : মুহিত * প্রাণীজ কাঁচা ও প্রক্রিয়াজাত পণ্য রপ্তানি আয় বছরে ৫ হাজার ৫৭৬ কোটি টাকা   |   জাতীয় সংসদ : বিদ্যুৎ রিবেট বাবদ গত অর্থবছরে ১৬১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা দেয়া হয়েছে : মতিয়া চৌধুরী * ৫০ হাজার ভূমিহীন কৃষককে খাস জমি বন্দোবস্ত দেয়া হবে : ভূমিমন্ত্রী * জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে ৫৬০টি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে : পরিবেশ মন্ত্রী   |   রাষ্ট্রপতি : উন্নয়ন-গবেষণামূলক কর্মকান্ডের প্রতি আরো মনোযোগী হতে রাষ্ট্রপতির আহ্বান * সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে ঊনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থানের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে : রাষ্ট্রপতি   |   প্রধানমন্ত্রী : রোহিঙ্গাদের অবিলম্বে প্রত্যাবাসন শুরু করার ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ * আবুল হাশেম চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক * একনেকে ৬২২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৪ প্রকল্পের অনুমোদন * উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থান আজও আমাদের অনুপ্রাণিত করে : প্রধানমন্ত্রী   |    অর্থনীতি : বেপজা ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টরস সামিট আগামীকাল * ফ্ল্যাট ঋণের সূদহার ৫ শতাংশ করার সুপারিশ এফবিসিসিআইয়ের   |    জাতীয় সংবাদ : টিভি অনুষ্ঠানের মানোন্নয়নে প্রাধান্য, সুপারিশে নয় : তথ্য প্রতিমন্ত্রী * শিক্ষা ক্ষেত্রে লিঙ্গ সমতা অর্জিত হয়েছে : স্পিকার * সব হাসপাতালে চিকিৎসক ও নার্সের সংখ্যায় ভারসাম্য আনার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর * আগামীকাল গণঅভ্যুত্থান দিবস   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : অমর একুশের গ্রন্থমেলার পরিসর ও প্রকাশনা সংস্থা বেড়েছে   |   আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও শৈত্য প্রবাহ কমবে   |    জাতীয় সংবাদ : ২১ আগস্ট মামলা : পলাতক তারেক রহমানের পক্ষে রাষ্ট্রনিযুক্ত আইনজীবীর যুক্তিতর্ক পেশ * খালেদা জিয়া সারাবিশ্বে দুর্নীতিবাজ হিসাবে পরিচিত : হানিফ * বিএনপি নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা দিলেও সংবিধানের বাইরে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই : ড. হাছান   |   খেলাধুলার সংবাদ : জিম্বাবুয়েকে ৯১ রানে হারালো বাংলাদেশ *ছয় হাজার রান ক্লাবের সদস্য হলেন তামিম *কস্তার গোলে জেনোয়াকে পরাজিত করলো জুভেন্টাস *ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে ম্যাথুজ, কুসলের নাম প্রত্যাহার   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : অলিম্পিকের ভেন্যু পরির্দশনের জন্য সিউলের প্রতিনিধিরা উ. কোরিয়ায় *ইসরাইল বিষয়ে টুইট করায় লরিয়েলের বিজ্ঞাপন করতে পারছেন না আমেনা খান * জাপানে আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে আহত ৪, নিখোঁজ ১ * চীনে অ্যাপার্টমেন্ট ভবনে অগ্নিকান্ডে ৪ জনের মৃত্যু, আহত ১৩   |    বিভাগীয় সংবাদ : মাদক নির্মুলে সকলকে কঠোর অবস্থান নিতে হবে : চুমকি * রংপুরে বর্তমান রাজস্ব সংস্কৃতি ও ভবিষ্যৎ কর্মকৌশল বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত * হবিগঞ্জে অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকারে উপাত্ত সংগ্রহ * জয়পুরহাটে ৩২৮ তম স্কাউট লিডার বেসিক কোর্স সম্পন্ন   |   

জয়পুরহাটের ক্ষেতলালে চিচিংগার বাম্পার ফলন

জয়পুরহাট, ১২ অক্টোবর, ২০১৭ (বাসস) : ধান চাষ না করে তুলনামূলক উঁু জমিতে চিচিংগা চাষ করে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছেন জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার সাগড়ামপুর গ্রামের কৃষকেরা। চিচিংগার বাম্পার ফলন ও উচ্চ দাম পাওয়ায় ওই এলাকার চাষিরা চিচিংগা চাষে এখন ঝুঁকে পড়েছেন। ইতোমধ্যে সাগড়ামপুর গ্রামটি জেলার মধ্যে সবজি চাষের শ্রেষ্ঠ গ্রামের স্বীকৃতি লাভ করেছে।
কৃষি বিভাগ সূত্র বাসসকে জানায়, ক্ষেতলাল পৌর এলাকার সাগড়ামপুর গ্রামের কৃষকেরা গত কয়েক বছর ধরে চিচিংগা চাষ করে আসছে। এ সবজি চাষ করে অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি তাদের পরিবারে ফিরে এসেছে সুখ ও স্বাচ্ছন্দ্য। পাইকারী ক্রেতারা জমি থেকে চিচিংগা সংগ্রহ করেন এবং ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার হাটবাজারগুলোতে সরবরাহ করে থাকেন। এ সবজি জমি থেকে বিক্রি হওয়ায় চাষিদের বাড়তি পরিবহন খরচ করতে হয়না আবার সময়ও সাশ্রয় হয়। ফলে বেশি লাভের আশায় ধান চাষের পরিবর্তে উঁচু জমিতে অন্যান্য সবজির পাশাপশি চিচিংগা চাষে ঝুঁকে পড়েছেন ওই এলাকার কুষকরা। উজানের ঢলে জেলার অধিকাংশ এলাকা ডুবে গেলেও ক্ষেতলালের সাগড়ামপুর গ্রামের চারপাশে প্রায় ৩৬ বিঘা উঁচু জমিতে চিচিংগা চাষ করা হয় এবারও।
সাগড়ামপুর গ্রামের চিচিংগা চাষি আজাদুল ইসলাম জানান, প্রথমে ২২ শতক জমিতে স্বল্প মেয়াদী এ চিচিংগা চাষ শুরু করেন। খরচ বাদ দিয়ে সে বছর প্রায় ৩৬ হাজার টাকা লাভ থাকে। এ ফসল লাভ জনক হওয়ায় প্রতি বছর চিচিংগা চাষ করে আসছি। চলতি বছরও প্রায় ৪৬ শতক জমিতে চিচিংগা চাষ করে ইতিমধ্যে প্রায় ৪২ হাজার টাকা বিক্রি করেছেন।
কালাই উপজেলার আতাহার গ্রামের চিচিংগার পাইকারী ব্যবসায়ী আবুল কাশেম জানান, ক্ষেতলাল উপজেলাতে চিচিংগা উৎপাদনরে গুনগত মান খুব ভাল। সে কারণে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলাতে এর চাহিদা অনেক বেশি। চাষিদের জমি থেকে বর্তমান বাজার দরে প্রতি মণ চিচিংগা প্রায় ১৪০০ থেকে ১৬০০ টাকা পর্যন্ত পাইকারী কিনছেন।
ক্ষেতলাল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আলমগীর কবির বাসসকে জানান, এ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে বিভিন্ন ফসল চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করার জন্য আইএফএমসি কৃষক মাঠ স্কুল স্থাপন করা হয়েছে। ওই কৃষক মাঠ স্কুলে কৃষকদের সবজি চাষের জন্য উন্নত জাতের বীজ সংগ্রহের পরামর্শ এবং বালাইনাশক ব্যবহার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে হাতে-কলমে শেখানো হয়ে থাকে। বর্তমান বাজারে চিচিংগা চাহিদা থাকা ও দাম ভাল পাওয়ায় আগামীতে চিচিংগা চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে এমন আশা করছেন কৃষক ও কৃষি বিভাগ।