ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : ত্রাণ তহবিলে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান গ্রহণ    |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : নাটোরে ই-সেবা সম্পর্কিত প্রেস ব্রিফিং   |   শিক্ষা : জয়পুরহাটের হাবিবুর বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কাব শিক্ষক নির্বাচিত   |   খেলাধুলার সংবাদ : পাকিস্তান সফরে যাবে না লংকান কোচ   |    বিভাগীয় সংবাদ : নারায়ণগঞ্জে দেয়াল চাপায় তিন বোন নিহত * জয়পুরহাটে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণে ১ হাজার ১৭৮টি প্রকল্প বাস্তবায়ন *নিষেধাজ্ঞা শেষ : পদ্মা মেঘনায় ইলিশ ধরা শুরু *কচা নদীর ওপর নির্মিত হবে বেকুটিয়া সেতু   |   আবহাওয়া : সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : নাইজেরিয়ায় ত্রয়ী আত্মঘাতী হামলায় ১৩ জন নিহত *জাপানে ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে ২ জনের প্রাণহানি * উত্তর কোরিয়াকে মোকাবেলার দৃঢ় অঙ্গীকার অ্যাবের * আফগান-ন্যাটো যৌথ অভিযানে ৫ জঙ্গি নিহত ও আহত ১৩   |    জাতীয় সংবাদ : জামায়াত নেতা আজিজসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রায় যে কোন দিন *সৈয়দ আশরাফে সহধর্মিনীর ইন্তেকাল    |   

প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে হারলো বাংলাদেশ

ব্লয়েমফন্টেইন, ১৩ অক্টোবর, ২০১৭ (বাসস) : দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে একমাত্র প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে হারলো সফরকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। গতকাল ব্লয়েমফন্টেইনে দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের কাছে ৬ উইকেটে হারলো টাইগাররা।
সাকিব আল হাসান ও সাব্বির রহমানের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশকে ২৫৬ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দেয় বাংলাদেশ। ২১ বল হাতে রেখেই সেই টার্গেট পেরিয়ে যায় স্বাগতিকরা। দলের পক্ষে দুই ওপেনার আইডেন মার্করাম ও ম্যাথু ব্রিতজেকে ১৪৭ রানের জুটি গড়েন। ২৬তম ওভারে এই জুটি ভাঙ্গেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ব্রিতজেকে ব্যক্তিগত ৭১ রানে শিকার করেন ম্যাশ। এরপর ব্যক্তিগত ৮২ রানে মার্করামকে আউট করেন অফ-স্পিনার নাসির হোসেন।
পরবর্তীতে অধিনায়ক জেপি ডুমিনি ও এবি ডি ভিলিয়ার্সকে শিকার করেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ডুমিনি ৩৪ ও ডি ভিলিয়ার্স ৪৩ রান করেন। বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ ২টি, মাশরাফি-নাসির ১টি করে উইকেট নেন।
এর আগে, টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলকে শুরুতে ৩১ রান এনে দেন দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকার। এরমধ্যে ৩ রান অবদান রেখে ফিরেন সৌম্য। ১৩ বলে ৩ রান করেন তিনি।
অষ্টম ওভারের প্রথম বলে সৌম্য ফিরে যাবার পরের ডেলিভারিতে আউট হন ইমরুল। ৬টি চারে ৩১ বলে ২৭ রান করেন তিনি।
তিন নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে ব্যর্থ হয়েছেন লিটন কুমার দাস। করেছেন মাত্র ৮ রান। তবে ৩টি চারে বড় ইনিংস খেলার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। কিন্তু ২৯ বলে ২২ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি।
মুশফিকুরের মতো ছোট্ট ইনিংস খেলে বিদায় নেন মিডল-অর্ডার ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদও। ২টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৭ বলে ২১ রান করেন রিয়াদ। এসময় ৫ উইকেটে ১২০ রানে পরিণত হয় বাংলাদেশ।
এখান থেকে শক্তহাতে দলের হাল ধরেন সাকিব ও সাব্বির। দুজনের মারমুখী মেজাজে বাংলাদেশের রানের চাকা দ্রুতই ঘুড়তে থাকে। এরইমাঝে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন সাকিব। শেষ পর্যন্ত ৯টি বাউন্ডারিতে ৬৭ বলে ৬৮ রান করেন তিনি।
সাকিবের বিদায়ের পর হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন সাব্বিরও। কিন্তু এরপরই বিদায় ঘন্টা বাজে সাব্বিরের। ২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫৪ বলে নিজের ৫২ রানের ইনিংসটি সাজান সাব্বির।
শেষের দিকে বাংলাদেশের কোন ব্যাটসম্যান বড় ইনিংস খেলতে না পারলে ৪৯তম ওভারের প্রথম বলেই অলআউট হয় বাংলাদেশ। তারপরও নাসির হোসেনের ১২, মাশরাফির ১৭ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের অপরাজিত ১৩ রানের সুবাদে ২৫৫ রান পায় বাংলাদেশ।
কিম্বার্লির ডায়মন্ড ওভালে আগামী ১৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
বাংলাদেশ : ২৫৫/১০, ৪৮.১ ওভার (সাকিব ৬৮, সাব্বির ৫২, ইমরুল ২৭, মুশফিকুর ২২, মাহমুদুল্লাহ ২১, মাশরাফি ১৭, সাইফউদ্দিন ১৩*)।
দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশ : ২৫৭/৪, ৪৬.৩ ওভার (মার্করাম ৮২, ব্রিতজেকে ৭১, মাহমুদুল্লাহ ২/১৩, মাশরাফি ১/৪৭, নাসির ১/৫২)।
ফল : দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশ ৬ উইকেটে জয়ী।