ঢাকা, শুক্রুবার, জানুয়ারী ১৯, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : আসাদের আত্মত্যাগে স্বাধীনতা আন্দোলন আরো গতিশীল হয় : প্রধানমন্ত্রী * মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের আকাশে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র : প্রধানমন্ত্রী * সাস্থ্যবান প্রজন্ম গড়তে প্রাণিসম্পদ খাতের গুরুত্ব অপরিসীম : শেখ হাসিনা   |   রাষ্ট্রপতি : শহীদ আসাদের সর্বোচ্চ অবদান তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা যোগাবে : রাষ্ট্রপতি * প্রাণিস্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতের মাধ্যমে ২০৩০ সালে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে : রাষ্ট্রপতি * মধুসূদন দত্ত বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ছিলেন : রাষ্ট্রপতি   |    জাতীয় সংবাদ : শহীদ আসাদ দিবস কাল * বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে : আসাদুজ্জামান খাঁন * এমপিও ভূক্তির জন্য শিক্ষকদের আন্দোলনের প্রয়োজন নেই : আইনমন্ত্রী   |    বিভাগীয় সংবাদ : যশোরের সাগরদাঁড়িতে আগামীকাল শুরু হচ্ছে সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা * মাগুরায় ১০ কিলোমিটার মহাসড়কে চার লেনের কাজ এগিয়ে চলছে   |   শিক্ষা : ঢাবি সিনেটে রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনে ঢাকা কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ আগামীকাল   |    জাতীয় সংবাদ : বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্ব শুরু, লাখো মুসুল্লির জুমার নামাজ আদায় * নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে বিএনপি জনপ্রিয়তা যাচাই করতে পারে : হানিফ * তারুণ প্রজন্মকেই আধুনিক সমাজ বিনির্মাণে এগিয়ে আসতে হবে : শিরীন শারমিন * আইভীকে দেখতে হাসপাতালে ওবায়দুল কাদের   |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহারে উড়োজাহাজ তৈরি করেছে গোপালগঞ্জের কিশোর আরমানুল ইসলাম   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : দ.কোরিয়ায় অগ্রবর্তী বাদকদল পাঠাবে উ.কোরিয়া * আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর অভিযানে ৮ জঙ্গি নিহত * ইরানের পারমাণু চুক্তির শর্ত কঠিন করাই মার্কিন আইনপ্রণেতাদের লক্ষ্য   |   আবহাওয়া : আবহাওয়া শুষ্ক এবং রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে   |   খেলাধুলার সংবাদ : রেকর্ড ব্যবধানে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ *তামিমের ১১, সাকিবের ১০ ও সাব্বিরের ১ হাজার রান *৩শ ম্যাচের মাইলফলক স্পর্শ করলেন মুশফিকুর রহিম   |   

বোল্টের বিধ্বংসী বোলিং-এ পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতলো নিউজিল্যান্ড

ডানেডিন, ১৩ জানুয়ারি ২০১৮ (বাসস/এএফপি) : বাঁ-হাতি পেসার ট্রেন্ট বোল্টের বিধ্বংসী বোলিং নৈপুন্যে তৃতীয় ওয়ানডেতে পাকিস্তানকে ১৮৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলেছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। রান বিচেনায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে এটিই নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়। এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ জয় নিশ্চিত করার পাশাপাশি ৩-০ ব্যবধানে এগিয়েও গেল কিউইরা। ডানেডিনে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে ২৫৭ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড। জবাবে বোল্টের ৫, কলিন মুনরো ও লোকি ফার্গুসনের ২টি করে উইকেট শিকারে মাত্র ৭৪ রানেই গুটিয়ে যায় পাকিস্তান। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে পাকিস্তানের এটি যৌথভাবে তৃতীয় সর্বনি রান।
প্রথম দুই ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখছিলো নিউজিল্যান্ড। তবে সিরিজ জয় নিশ্চিতের ম্যাচে শুরুটা ভালো করতে পারেনি কিউইরা। দলীয় ১৫ রানে নামের পাশে ৮ রান রেখে ফিরেন ওপেনার কলিন মুনরো। এরপর ৬৯ রানের জুটি গড়েন আরেক ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ৪৫ রান করে গাপটিলে ফিরে গেলেও সাবেক অধিনায়ক রস টেইলরের সাথে দলের পুঁিজ বড় করতে থাকেন উইলিয়ামসন।
কিন্তু দলীয় ৪৩ ওভারে ২০৯ রানের মধ্যে উইলিয়ামসন ও টেইলর ফিরে গেলে, নিউজিল্যান্ডের রানের গতি কমে যায়। কারন নিউজিল্যান্ডের পরের দিকের ব্যাটসম্যানদের বড় ইনিংস খেলতে দেননি পাকিস্তানের বোলাররা। তাই ৪ উইকেটে ২০৯ রান থেকে ২৫৭ রানেই গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস।
উইলিয়ামসন ৭টি চারের সহায়তায় ১০১ বলে ৭৩ রান করেন। ৬৪ বলে ৫২ রানের ইনিংসে ৪টি চার মারেন টেইলর। এছাড়া উইকেটরক্ষক টম লাথাম ৩৫ বলে ৩৫ রান করেন। পাকিস্তানের পক্ষে রুম্মন রইস ও হাসান আলী ৩টি করে উইকেট নেন।
সিরিজে টিকে থাকার জন্য ২৫৮ রানের জয়ের লক্ষ্যে নেমে কিউই পেসার বোল্টের তোপের মুখে পড়ে পাকিস্তান। ১ রানে প্রথম এবং ২ ও ৩ রানে তৃতীয় উইকেট হারায় তারা। এরপর ৩২ রানের মধ্যে আরও ৫ উইকেট হারিয়ে ওয়ানডেতে সর্বনি রানে গুটিয়ে যাওয়ার শংকায় পড়ে পাকিস্তান। ওয়ানডেতে সর্বনি রান ৩৫। ২০০৪ সালে হারারেতে শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৮ ওভারে ৩৫ রানেই গুটিয়ে গিয়েছিলো জিম্বাবুয়ে।
তবে পাকিস্তানকে এমন লজ্জার হাত থেকে রক্ষা করেন অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ ও লোয়ার অর্ডারের অন্য তিন ব্যাটসম্যান। সরফরাজ অপরাজিত ১৪, ফাহিম আশরাফ ১০, শেষ দুই ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আমির ১৪ ও রইস ১৬ রান করেন। শেষ ব্যাটসম্যান রইসই সর্বোচ্চ রান করেন। এতে ২৭ দশমিক ২ ওভারে ৭৪ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সফরকারী দলের যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বনি রান এটি।
নিউজিল্যান্ডের বোল্ট ৪৪ ডেলিভারিতে ১৭ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন। ৬০ ম্যাচের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে চতুর্থবারের মত পাঁচ উইকেট নেন বোল্ট। পাকিস্তানের বিপক্ষে কোন নিউজিল্যান্ড বোলারের এটিই সেরা বোলিং ফিগার। আগামী ১৬ জানুয়ারি হ্যামিল্টনে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
নিউজিল্যান্ড : ২৫৭/১০, ৫০ ওভার (উইলিয়ামসন ৭৩, টেইলর ৫২, রইস ৩/৫১)।
পাকিস্তান : ৭৪/১০, ২৭.২ ওভার (রাইস ১৬, সরফরাজ ১৪*, বোল্ট ৫/১৭)।
ফল : নিউজিল্যান্ড ১৮৩ রানে জয়ী।
ম্যাচ সেরা : ট্রেন্ট বোল্ট (নিউজিল্যান্ড)।
সিরিজ : পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে নিউজিল্যান্ড।