ঢাকা, শনিবার, জানুয়ারী ২১, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

খেলাধুলার সংবাদ : সাফ রানার-আপ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলকে সংবর্ধনা * প্রথম টি-২০ জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা * চার ঘন্টা লড়াই করে চতুর্থ রাউন্ডে উঠলেন নাদাল * একাডেমী কোচ হিসেবে লিভারপুলে ফিরছেন স্টিভেন জেরার্ড    |   খেলাধুলার সংবাদ : মনে হয় সিটির জন্য আমি যথেষ্ট ভাল কোচ নই : গার্দিওলা * ম্যাটিপকে লিভারপুলে খেলার অনুমতি দিল ফিফা * শেষ মুহূর্তে সাকিবের ঘূর্ণিতে দুর্দান্তভাবে লড়াইয়ে ফিরলো বাংলাদেশ * অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম দুই ওয়ানডের জন্য দল ঘোষণা করলো নিউজিল্যান্ড   |   শিক্ষা : নড়াইলে স্কাউটসের দিনব্যাপী শিক্ষকদের ওয়ারিয়েন্টেশন কোর্স অনুষ্ঠিত   |   বিজ্ঞান ও প্রযুত্তি : শেরপুরে অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সেবার সূচনা   |    জাতীয় সংবাদ : দশম জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশন শুরু কাল *বিএনপির নির্বাচন কালীন সরকার গঠনের প্রস্তাব মনগড়া : তথ্যমন্ত্রী *   |   প্রধানমন্ত্রী : দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী * ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার মাতার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : গাম্বিয়া সংকট : পদত্যাগের ঘোষণা ইয়াহিয়া জামেহর * ওবামাকেয়ারের বিরুদ্ধে ডিক্রি জারি ট্রাম্পের *ইতালিতে বাস দুর্ঘটনা, নিহত ৭ *   |    জাতীয় সংবাদ : বিচার বিভাগে মনিটরিং ড্যাস বোর্ড তৈরি হচ্ছে, বেড়েছে মামলা নিষ্পত্তি *অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক প্রত্যাহার করতে ভারতের প্রতি বাণিজ্যমন্ত্রীর আহবান * আইবিএ দক্ষ জনবল সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে : স্পিকার   |    বিভাগীয় সংবাদ : মেঘ-পাহাড়ের রাজ্য সাজেক ভ্যালী *জয়পুরহাটে ১৪ কোটি টাকা উপবৃত্তি বিতরণ *সাতক্ষীরায় গ্রেফতার ৩৩, মাদকদ্রব্য উদ্ধার *   |   

নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল : চুমকি

ঢাকা, ১২ জানুয়ারি, ২০১৭ (বাসস) : মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।
প্রতিমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের হলরুমে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে ন্যাশনাল হেল্পলাইন (১০৯২১ নম্বরটি) সেন্টারের সম্প্রসারিত ইউনিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মিকায়েল হিমনিটি উইনথার, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম।
এতে স্বাগত বক্তব্য দেন নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টরাল প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন।
প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি নারীর ক্ষমতায়নের সারা বিশ্ব এখন এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে বলেন, আর বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই, বরং এক ধাপ এগিয়ে রয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এজন্য আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন। বাংলাদেশে সর্বক্ষেত্রে পুরুষের পাশাপাশি নারীরা এখন এগিয়ে যাচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী নারীরা দুর্গম পথ পাড়ি দিয়ে সমাজে এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে বলেন, সমাজে এখনও নারীরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। নারী ও শিশুরা সাইবার ক্রাইমের শিকার হচ্ছেন। জোয়ারের সাথে কিছু খারাপ জিনিসও চলে আসতে পারে। আর সাইবার ক্রাইমও এমন একটি বিষয়। মূল কথা হলো- এই হেল্পলাইন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অন্যতম একটি অংশ।
নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টরাল প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন জানান, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টরাল প্রোগ্রামের আওতায় ২০১২ সালের ১৯ জুন নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে ন্যাশনাল হেল্পলাইন সেন্টার অধিদপ্তরের ৮ম তলায় প্রতিষ্ঠা করা হয়। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এই প্রকল্পের অনূকুলে ১০৯২১ নম্বরটি হেল্পলাইন নম্বর হিসেবে প্রদান করে।
তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালের ৮ মার্চ ১০৯২১ নম্বরটি টোল ফ্রি ঘোষণা করেন। বাল্যবিবাহ বন্ধ, যৌন হয়রানি প্রতিরোধ, নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশুকে উদ্ধারের ক্ষেত্রে এই হেল্পলাইন সেন্টার প্রয়োজনীয় ও কার্যকরী ভূমিকা রাখছে।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়েছে, ডিসেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত হেল্পলাইনের মাধ্যমে মোট ২ লাখ ৫১ হাজার ৬২৩ জন নারী ও শিশুকে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
সময়ের সাথে চাহিদার প্রেক্ষিতে বর্তমানে হেল্পলাইটি সকলের নিকট সমাদৃত উল্লেখ করে অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, ইতোমধ্যে ২০১৭ সালের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাঠ্যপুস্তকের কভারে ১০৯২১ হেল্পলাইন সন্নিবেশ করা হয়েছে।
প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন আরও জানান, নারী ও শিশুকে তাৎক্ষণিক সহায়তা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক্সেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের সহায়তা স্মার্টফোনে ব্যবহারযোগ্য মোবাইল অ্যাপস জয় তৈরী করা হয়েছে। এই অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে নির্যাতনের শিকার নারী ও শিশু কিংবা তাদের পরিবার ১০৯২১ এ তাৎক্ষণিকভাবে এসএমএস প্রেরণ করতে পারবেন। মোবাইল অ্যাপস জয় এর ব্যবহার এবং পাঠ্যপুস্তকে ১০৯২১ সন্নিবেশ করায় হেল্পলাইনের ফোনের সংখ্যা অধিক পাওয়ায় ন্যাশনাল হেল্পলাইন সেন্টার সম্প্রসারণ করা হয়েছে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক।

সম্পর্কিত সংবাদ