ঢাকা, বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

বিভাগীয় সংবাদ : হবিগঞ্জে রেকর্ডসংখ্যক মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে * জয়পুরহাটে ৮২ লাখ টাকা কৃষি প্রণোদনা বরাদ্দ   |   

প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা আহসান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

ঢাকা, ২১ এপ্রিল, ২০১৭ (বাসস) : প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকী আগামী ৭ মে। এ উপলক্ষে ঢাকা ও গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে।
আজ বিকেলে ঢাকায় শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার স্মৃতি পরিষদের সভাপতি এডভোকেট আবদুল বাতেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক সভায় এসব কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।
কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- ৭ মে সকালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের হায়দরাবাদ গ্রামে আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবরে পুপার্ঘ্য অর্পণ। পবিত্র কোরআনখানি, কালো ব্যাজ ধারণ, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, তবারক বিতরণ, স্মরণিকা প্রকাশ, আলোচনা ও স্মরণ সভা।
আগামী ৬ মে সকাল সাড়ে ১০টায় স্মৃতি পরিষদের উদ্যেগে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি মিলনায়তনে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত সমাজ গঠনে জনপ্রতিনিধিদের ভূমিকা শীর্ষক এক আলোচনা ও স্মরণ সভার আয়োজন করা হয়েছে। এতে মন্ত্রী, এমপি, শিক্ষক, আইনজীবী ও সাংবাদিক নেতাসহ বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার নেতৃবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেবেন। ৭ মে সকালে হায়দরাবাদ ও টঙ্গীতে স্থানীয়ভাবে দুটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে ।
সভায় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, কোষাধ্যক্ষ শাহরিয়ার জিয়াউর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক জাকির মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক মনিরুজ্জামান, সদস্য কামরুজ্জামান লিটন, প্রতীতি রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ, আহসান উল্লাহ মাষ্টার গাজীপুর-২ আসন হতে ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে দুবার সংসদ সদস্য, ১৯৯০ সালে গাজীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এবং ১৯৮৩ ও ১৯৮৭ সালে দুদফা পূবাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
তিনি আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য, শিক্ষক সমিতিসহ বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। আহসান উল্লাহ মাস্টার শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ও সাধারণ সস্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।
২০০৪ সালের ৭ মে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মদদ পুষ্ট একদল সন্ত্রাসী টঙ্গীর নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চবিদ্যালয় মাঠে এক জনসভায় প্রকাশ্যে দিবালোকে গুলি করে আহসান উল্লাহ মাস্টারকে হত্যা করে।
আহসান উল্লাহ মাস্টারের বড় ছেলে ও স্মৃতি পরিষদের প্রধান পৃষ্ঠপোষক জাহিদ আহসান রাসেল এমপি তাঁর পিতার ১৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকীর কর্মসূচীতে গ্রামের বাড়ি হায়দরাবাদসহ টঙ্গী ও গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামী লীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতাকর্মীসহ সকল স্তরের মানুষকে অংশগ্রহণ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

সম্পর্কিত সংবাদ