ঢাকা, রবিবার, এপ্রিল ২২, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : তারেক লন্ডনে বসে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করছে : প্রধানমন্ত্রী   |    জাতীয় সংবাদ : সাইবার অপরাধের বিরুদ্ধে কমনওয়েলথের দৃঢ় অবস্থান * বাণিজ্য ও বিনিয়োগের জন্য যোগাযোগ এজেন্ডা গ্রহণ করলো কমনওয়েলথ * উন্নয়ন ও সুশাসনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে নৌকায় ভোট দিন : স্বাস্থ্যমন্ত্রী   |    জাতীয় সংবাদ : প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পরই মহার্ঘ্য ভাতা সম্পর্কিত প্রজ্ঞাপন : ইনু * বিসিএসআইআর মডেল রাস্তা নির্মাণে জাপানের টুইস্টার টেকনোলজি ব্যবহার করবে * জাতিসংঘের ৫৪টি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ১ লাখ ৫৬ হাজার ৩২৮ জন শান্তিরক্ষীর অংশ গ্রহণ   |   খেলাধুলার সংবাদ : আইপিএল : গেইল-রাহুল ঝড়ে উড়ে গেল কলকাতা *ওয়াটসনের সেঞ্চুরিতে জয়ের ধারায় ফিরলো চেন্নাই *মিরপুরে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক ভলিবল   |   আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে   |    বিভাগীয় সংবাদ : টাঙ্গাইলে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু *দিনাজপুরে পৃথক ২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ১৯ জন আহত   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : উ. কোরিয়ার প্রতিশ্রুতিতে সন্তুষ্ট নয় জাপান *সিনেট প্যানেলে প্রত্যাখ্যাত হতে পারেন পম্পেও * অশালীন ভিডিও : সৌদি আরবে বন্ধ করে দেয়া হলো নারী শরীরচর্চা কেন্দ্র *পারমাণবিক অস্ত্র নিরস্ত্রীকরণ প্রশ্নে ইতিবাচক পদক্ষেপ উ.কোরিয়ার   |   

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালি জাতিকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র এনে দিয়েছে

ঢাকা, ১৪ নভেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বাঙালি জাতিকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র এনে দিয়েছে।
বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে ইউনেস্কোর মেমোরি অফ দি ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টার এ যুক্ত হওয়া উপলক্ষে আয়োজিত এক আনন্দ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত বিশিষ্ট কবি নির্মলেন্দু গুণ এ কথা বলেন।
আজ সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমি নিজস্ব নন্দনমঞ্চে এ আনন্দ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও অ্যাক্রোবেটিক শো প্রদর্শিত হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তৃতা করেন সংস্কৃতি বিষয়ক সচিব ইব্রাহিম হোসেন খান ও বাংলাদেশ বেতারের সাবেক উপ-পরিচালক আশফাকুর রহমান খান। সভাপতিত্ব করেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।
নির্মলেন্দু গুণ বলেন, তিনি লেনিন, মহাত্মা গান্ধী, ফ্রিদেল কেস্ত্রো, মাও সেতুংসহ বহু বিশ্বনেতার পৃথিবী সেরা ভাষণ শুনেছেন, কিন্তু বঙ্গবন্ধুর ভাষণের মতো সেগুলো এতো জীবন্ত ছিল না।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণে এমন একটা সম্মোহনী শক্তি ছিল, যা সাড়ে ৭ কোটি বাঙালিকে স্বাধীনতার মন্ত্রে উদ্বুদ্ধ করেছিল। বাংলার নারী-পুরুষ, তরুণ, বৃদ্ধ, যুবা, কিশোর, শিশু সবাই মুক্তিযুদ্ধে যেতে আর দ্বিধা করেনি।
কবি বলেন, পৃথিবীর অন্য সেরা ভাষণগুলো এখন ইতিহাস বা ইতিহাসের পাঠ্য হয়ে গেছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর ভাষণ আজো আমাদের জীবনের চলার পাথেও, নানা আন্দোলনের প্রেরণা এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনায় জাগ্রত থাকার মূলমন্ত্র হিসেবে কাজ করছে।
তিনি বলেন, ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় জাতি হিসেবে আমরা গর্বিত। নির্মলেন্দু গুণ পরে তার লেখা স্বাধীনতা এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো কবিতাটি পাঠ করে শোনান।
জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হওয়া এ আনন্দ অনুষ্ঠানের সাংস্কৃতিক পর্বে দীপা খন্দকারের পরিচালনায় রাঙিয়ে দিয়ে যাও যাওগো..; অনিক বোসের পরিচালনায় ধন্য মুজিব ধন্য.. এবং বাংলার হিন্দু বাংলার মুসলিম..; শিল্পকলা একাডেমি নৃত্য দলের পরিবেশনায় দুঃখিনী বাংলা জননী বাংলা.. এবং যতদিন রবে পদ্মা মেঘনা যমুনা..; আনিসুল ইসলাম হিরুর পরিচালনায় মুজিব আছে বাংলার ঘরে-ঘরে.. এবং সাড়ে সাত কোটি মানুষের আর একটি..; ওয়ার্দা রিহাবের পরিচালনায় মুজিব মানে আর কিছু না.. এবং শোন একটি মুজিবরের কণ্ঠ থেকে..; কবিরুল ইসলাম রতনের পরিচালনায় বিদ্রোহী এবং এমআর ওয়াসেকের পরিচালনায় তুমি বলেছিলে এবারের সংগ্রাম.. ও মুজিব মানে বিজয়ের গান..সহ বিভিন্ন গানের কথায় সমবেত নৃত্য পরিবেশিত হয়।
অনুষ্ঠানে কবিকন্ঠে কবিতা আবৃত্তি করেন কবি ড. মোহাম্মদ সামাদ ও কবি আসলাম সানী এবং আবৃত্তি করেন শিল্পী হাসান আরিফ। সবশেষে পরিবেশিত হয় শিল্পকলা একাডেমি অ্যাক্রোবেটিক দলের পরিবেশনায় অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী।

সম্পর্কিত সংবাদ